একটা  দুটো নয়, ২০০ টি গোখরো সাপ, কিল-বিল করছে দোকানের ভিতর। ছবি দেখেই আঁতকে ওঠার জোগাড়! বন্ধ জুতোর দোকান পরিষ্কার করতে গিয়ে ভয়ঙ্কর দৃশ্য দেখে চমকে উঠেছিলেন মালিক বাদশা মিঞা। বিশ্বজুড়ে করোনার প্রকোপ রুখতে লকডাউন

এর পথ অনুসরণ করছে বহু দেশের প্রশাসন। বাংলাদেশেও চলছে লকডাউন। তাই দীর্ঘদিন ধরে সেখানে দোকান—পাট বন্ধ। আর বন্ধ দোকানে বাসা বেঁধেছিল এতগুলো গোখরো সাপ।

বাংলাদেশের লালমনিরহাটের বড়খাতা বাজারের একটি জুতোর দোকান দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ। এদিন সকালে বাদশা মিঞা দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকা দোকান পরিষ্কার করতে আসেন। দোকান খুলে একটি জুতোর বাক্সে তিনি বড়সড় একটি গোখরো সাপ দেখতে পান।

এর পর একের এক জুতোর বাক্স খুলতে শুরু করেন তিনি। আর তখনই চোখ কপালে ওঠে তাঁর। একেকটি বাক্সে কিলবিল করছে গোখরো সাপের বাচ্চা। বাজারে সেই সময় বেশ কিছু ক্রেতা হাজির ছিলেন। তারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। তবে তাঁদের মধ্যে কেউই বন দফতরে খবর দেননি।

দুশোটি গোখরো সাপের বাচ্চাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে নির্মমভাবে মেরে ফেলে উন্মত্ত জনতা। এমনকী প্রাপ্তবয়স্ক গোখরো সাপটিকেও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়। গোটা ঘটনা ঘটে প্রকাশ্যে।

বিভিন্ন দেশের সরকার বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও বন্যপ্রামী হত্যা রুখতে একাধিক পদক্ষেপ নিচ্ছে। সচেতনতার জন্যও অনেক উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এমন ঘটনা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়, সরকারের কথা কানে তুলছে না জনতা।

Write A Comment

13 + seventeen =

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close